মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৭ মার্চ ২০২০

বার্ড-এ যথাযথ মর্যাদায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস-২০২০ উদযাপিত


প্রকাশন তারিখ : 2020-03-17

অদ্য ১৭ মার্চ ২০২০ তারিখে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমি (বার্ড)-এ যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস-২০২০ উদযাপিত হয়েছে। এ দিবসটি উদযাপনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমি-তে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুস্পস্তবক অর্পণ, কেক কেটে, বেলুন উড়িয়ে, প্রামাণ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শন, মিলাদ মাহফিল ও বিশেষ মোনাজাত, শত প্রদীপ প্রজ্জলন ও টিভির পর্দায় কেন্দ্রীয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সরাসরি সম্প্রচার উপভোগসহ দিনব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানমালায় অংশগ্রহণ করেন বার্ডের সকল স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ ও প্রশিক্ষণার্থীবৃন্দ। সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের পর বার্ডের সকল স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন বার্ডের মহাপরিচালক জনাব মোঃ শাহজাহান। পরবর্তীতে বার্ড অনুষদ পরিষদ, অফিসার্স এসোসিয়েশন, কর্মচারী ইউনিয়ন এবং প্রশিক্ষণার্থীদের পক্ষ থেকে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়। পুস্পস্তবক অর্পণের পর বার্ড, মহাপরিচালক স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস-২০২০ এর উপর বক্তব্য প্রদান করেন। সকাল ৭:৩০ মিনিটে বার্ডের বঙ্গবন্ধু কর্ণারে জাতির পিতার সময়ানুক্রমিক জীবন ইতিহাস সম্বলিত ডিসপ্লেবোর্ড এবং বঙ্গবন্ধু জীবন ও কর্মভিত্তিক ছবি ও পুস্তক প্রদর্শনীর শুভ উদ্বোধন করা হয়। সকাল ১০ ঘটিকায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে লালমাই-ময়নামতি প্রকল্পের সুফলভোগীদের মাঝে ২০০০ হাজার উন্নতজাতের হাঁসের বাচ্চা, চার হাজার কেজি উচ্চফলনশীল (ব্রি-৪৮) আউশ ধানের বীজ এবং ৩০০০ ফলজ বৃক্ষের চারা বিতরণ করা হয়। বাদ যোহর বার্ড জামে মসজিদে মিলাদ মাহফিল ও বিশেষ মোনাজাতের আয়োজন করা হয়। সন্ধ্যায় জাতির পিতার ম্যুরালে ১০০টি প্রদীপ জ্বালিয়ে এবং জাতীয় অনুষ্ঠান উপভোগের মাধ্যমে কর্মসূচির সমাপ্তি হয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বার্ড ক্যাম্পাসে বর্ণিল সাজ ও আলোকসজ্জা করা হয়। সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক বার্ডের আয়োজিত কর্মসূচিগুলোতে শিশুদের অংশগ্রহণ করা থেকে বিরত রাখা হয়।

 



Share with :

Facebook Facebook